শিবচরে বিপনী বিতান ২১ মে থেকে বন্ধ, ঈদে বাড়ি আসাদের থাকতে হবে হোম কোয়ারেন্টাইনে

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ

করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে শিবচরে নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান বাদে সকল দোকান আগামী ২১ মে থেকে বন্ধ থাকবে। ২১ মে পর্যন্ত বিপনী বিতানসহ অন্যান্য দোকান বেলা ১১ টার পরিবর্তে সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। আসন্ন ঈদে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বাড়িতে আসা মানুষকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা নিশ্চিত করা হবে । রবিবার উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে শিবচর ও চীফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরীকে মডেল আখ্যা দেন জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার।

জানা যায়, করোনা ভাইরাসের কারনে দেশের প্রথম কনটেইনমেন্ট ও লকডাউন ঘোষনাকৃত শিবচরে গত ১৯ মার্চ থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান বাদে সকল দোকান বন্ধ ঘোষনা করে প্রশাসন। সংক্রমন হ্রাস পাওয়ায় সম্প্রতি বাজারগুলোর নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকান ৭ টা থেকে ১১ টা ও জামা কাপড়সহ অন্যান্য দোকান ১১ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত খোলা রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়। দেশের সার্বিক পরিস্থিতি চিন্তা করে রবিবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক সোমবার থেকে আগামী ২১ মে পর্যন্ত নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান সকাল ৭ টা থেকে ১১ টা ও বিপনী বিতানসহ অন্যান্য দোকান সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। আর ২১ মে থেকে শুধু মাত্র নিত্য প্রয়োনীয় দোকান বাদে সকল দোকান বন্ধ থাকবে। পবরর্তীতে সরকার যে সিদ্ধান্ত গ্রহন করবে তা বাস্তবায়ন করা হবে। স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব না মেনে কোন দোকান চালু রাখলে সেই দোকান বন্ধ করে দেওয়া হবে বলেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ সময় জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মাহবুব হাসান, উপজেলা চেয়ারম্যান মো: সামসুদ্দিন খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আসাদুজ্জামান, সহকারী পুলিশ সুপার আবির হোসেন, ওসি আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আ: লতিফ মোল্লা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বিএম আতাউর রহমান (আতহার), ফাহিমা আক্তার, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: শশাঙ্ক চন্দ্র ঘোষ, উপজেলা যুবলীগের,  সভাপতি ইলিয়াছ পাসা, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক  মোঃ খায়রুজ্জামান খান,প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে চীফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী স্যারের সঠিক দিক নির্দেশনায় শিবচর মডেল হিসেবে গণ্য হয় সারাদেশে। তাই লকডাউন অন্যান্য স্থানের চেয়ে শিবচরে অধিক সফল হবে।

বিষয়:   স্থানীয় সংবাদ       রবিবার ১৭ মে, ২০২০