শিবচরের বহেরাতলায় রাতের আধারে শতাধিক ফলদ বৃক্ষ কেটে ফেললো দূর্বৃত্তরা, গাছের সাথে নিষ্ঠুরতা দেখে চাপা ক্ষোভ জানিয়েছে এলাকাবাসী

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ

শিবচরের বহেরাতলা দক্ষিণ ইউনিয়নের সরকারচরে রাতের আধারে শতাধিক ফলদ বৃক্ষ কেটে ফেললো দূর্বৃত্তরা। দূর্বৃত্তদের এমন আচরণে এলাকার জন মানুষের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে চাপা ক্ষোভ। দূর্বৃত্তদের এই আচরণে ফলের বাগান করায় উদ্বুদ্ধ হওয়া উদ্যোক্তারাও হারিয়েছে মনোবল। তিলে তিলে যত্ন করে বড় করা এই ফলদ গাছ কাটা দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েছেন ফল বাগান মালিক। গাছের সাথে এমন অমানবিক নিষ্ঠুরতার সঠিক বিচার দাবী করেছেন এলাকাবাসী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালে ২১ শতাংশ জমির উপর শিবচরের বহেরাতলা দক্ষিণ ইউনিয়নের সরকারচর সোনাখার কান্দিতে বিভিন্ন ধরনের ফলদ বৃক্ষ রোপন করেন ইটালি প্রবাসী যুবক কামাল মিয়া। ফলদ গাছগুলোতে ফলও ধরেছে থোকায় থোকায়। এলাকায় কামাল মিয়ার ফলের বাগানের দেখা দেখি আশ-পাশেও অনেকে বাগান করতে উদ্বুদ্ধ হয়। ওই এলাকায় আরো কয়েকটি বাগান রয়েছে। বাগানগুলো দেখতে অনেকে আসেন। দু’বছর আগে ফল বাগানী ইটালি প্রবাসী কামাল মিয়া শখের বসে আম, পেয়ারা, লেবু, ছফেদা, ডালিমসহ বেশ কয়েক প্রকৃতির ফলদ চারা রোপন করেন। রোপনের বছর খানেক পর থেকেই কয়েকটিতে ফল ধরা শুরু করেছে। তবে দূর্বৃত্তদের অমানবিক আচরণে ফলবাগান করার স্বপ্ন ভেঙ্গে চুরমার হলো ফল বাগানীর। রাতের আধারে গাছের উপর এমন পৈচাশিক নিষ্ঠুরতা কোন মানুষের হতে পারে কি না এই নিয়ে চাপা ক্ষোভ জানান এলাকাবাসী।

বহেরাতলা দক্ষিণ ইউপি চেয়ারম্যান অলি উল্লাহ খালাসী জানান, ঘটনা খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। গাছের সাথে এরকম ন্যাক্কারজনক আচরণ এরকম নিষ্ঠুরতা কোন মানে হয় না। প্রকৃত দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান তিঁনি।

বিষয়:   স্থানীয় সংবাদ       বৃহস্পতিবার ২১ মে, ২০২০