মাদারীপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন কোন রোগী শনাক্ত নাই, আইসোলেশনে ১৭ জন

মাদারীপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন কোন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে শনাক্ত হয় নাই। এছাড়া নতুন করে কাউকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয় নাই এবং কোন ব্যক্তির হোম কোয়ারেন্টাইন শেষও হয়নি। গত ৩ এপ্রিল থেকে এপর্যন্ত ২১৪ জনের নমুনা করোনা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে যার মধ্যে ১৯৪ জনের রিপোর্ট পাওয়া গেছে। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মাদারীপুরে আজ নতুন করে কোন করোনারোগী শনাক্ত না হওয়ায় করোনা ভাইরাসে শনাক্ত সংখ্যা ২৩ – এ রয়েছে।

মাদারীপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের পরিসংখ্যানবিদ মীর রিয়াজ আহমেদ জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে কাউকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয় নাই এবং কোন ব্যক্তির হোম কোয়ারেন্টাইন শেষও হয়নি। বর্তমানে মাদারীপুরে হোম কোয়ারেন্টাইন আছেন ৯৩ জন। এছাড়া আইসোলেশনে আছেন ১৭ জন। এর মধ্যে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ১৪ জন, কালকিনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১ জন এবং রাজৈর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২ জন রয়েছে। মাদারীপুর থেকে ৩ এপ্রিল থেকে আজ পর্যন্ত ২১৪ জনের নমুনা করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৭৮ জনের রিপোর্ট পাওয়া গেছে, যার মধ্যে ১৬ জনের করোনা ভাইরাস পজিটিভ হয়েছে। এপর্যন্ত মাদারীপুর জেলায় মোট আক্রান্ত সংখ্যা পূর্বের ২৩ জনই রয়েছে। এর মধ্যে শিবচর উপজেলার ১৫ জনও সদর উপজেলায় ৫ জন, রাজৈর উপজেলায় ২ জন এবং কালকিনি ১ জন।

আজও প্রথম দিনের মতো মাদারীপুর জেলা লকডাউন চলছে। দুপুর ২টা পর্যন্ত নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান খোলা রয়েছে। এছাড়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সারাদেশকে করোনা ভাইরাস সংক্রমন বিস্তার ঝুকিপূর্ণ ঘোষণা করায় সন্ধ্যায় ৬টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত ঘর থেকে বের হওয়া নিষিদ্ধ রয়েছে।

মাদারীপুর প্রশাসন, পুলিশও স্বাস্থ্য বিভাগসহ করোনা প্রতিরোধ কমিটি সচেষ্ট রয়েছে মাদারীপুরের করোনা প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য। পাশাপাশি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী শহরসহ গ্রামেও মানুষকে ঘরে ফেরাতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়াও গত রাত ১০টা থেকে মাদারীপুর জেলায় লকডাউন কার্যকর হওয়ায় প্রশাসন আরও কঠোর অবস্থানে রয়েছে। কাউকে বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের না হতে প্রশাসন অনুরোধ করেছেন।

বিষয়:   স্থানীয় সংবাদ       শুক্রবার ১৭ এপ্রিল, ২০২০