মাদারীপুরের শিবচরে যুবকের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ, পরিবারের দাবী ডেকে নিয়ে হত্যা

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ

শিবচরের কুতুবপুরে কালাম ঘরামী (২৫) নামের এক যুবকের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে শিবচর থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার ভোরে কুতুবপুরের ফালুমাদবর কান্দি গ্রামে নিহতের বাড়ির পাশের একটি বাগান থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় মরদেহটি পাওয়া যায়। নিহত কালাম ঘরামীর পরিবারের লোক জনের দাবি জমি জমা নিয়ে বিরোধের জেরে নিহতের চাচাতো ভাই হারুন ঘরামী রাতে ডেকে নিয়ে হত্যা করেছে কালাম ঘরামীকে। নিহত কালাম ঘরামী কুতুব পুরের ফালুমাদবর কান্দি গ্রামের নুরু ঘরামীর ছেলে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাত সাড়ে ১১টার সময় কালাম ঘরামীকে তারই চাচাতো ভাই হারুন ঘরামী কথা আছে বলে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে যায়। বেশ কয়েক ঘন্টা ছেলে ঘরে না ফেরায় সাহরির সময় হারুন ঘরামীর কাছে কালাম ঘরামী কোথায় আছে জানতে চাইলে হারুন কথা এড়িয়ে যায়। বৃহস্পতিবার ভোরে বাড়ির পাশে একটি বাগানে কালাম ঘরামীর মরদেহ দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরে পরিবারের লোকজন এসে মরদেহটি দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।

নিহত কালাম ঘরামীর বাবা নুরু ঘরামী জানান, জমা জমি নিয়ে তার ভাতিজা হারুন ঘরামীর সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলছিল। গতকাল রাত সাড়ে ১১টার সময় আমার ভাতিজা হারুন ঘরামী আমার ছেলেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর আর ঘরে ফেরেনি। সকালে বাড়ির পাশের বাগানে লাশ দেখে প্রতিবেশীরা আমায় খবর দিয়েছে।

শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ জানান, পরিবার ও এলাকাবাসী খবর দিলে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট করে মাদারীপুর মর্গে প্রেরনকরা হচ্ছে। আইনগত ব্যবন্থা প্রক্রিয়াধীন।

বিষয়:         বৃহস্পতিবার ১৪ মে, ২০২০